সন্ত্রাসবাদ নিয়ে ভারতের অবস্থানকে সমর্থন ইজরায়েলের

Share This
Tags

নয়াদিল্লি ও জেরুজালেম : সন্ত্রাসবাদ নিয়ে ভারতের অবস্থানকে সার্বিকভাবে সমর্থন জানাল ইজরায়েল| প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীর সফরের আগে জেরুজালেম স্পষ্ট ভাষায় জানাল, পাক ভূখণ্ড থেকে উদ্ভূত ও দেশের মধ্যে সন্ত্রাসবাদ ইস্যুতে ভারতকে পুরোদস্তুর সমর্থন করবে তারা| একইসঙ্গে ইজরায়েল বলেছে, ভারতের আত্মরক্ষার অধিকার রয়েছে| ইজরায়েলের বিদেশমন্ত্রকের ডেপুটি ডিরেক্টর জেনারেল মার্ক সোফার বলেন, ভারত ও ইজরায়েল উভয় দেশই সন্ত্রাসবাদের শিকার| তিনি আরও বলেন, লস্কর-ই-তৈবা ও হামাসের মতো সংগঠনগুলির কোনও তফাত্ নেই| উভয় দেশেরই আত্মরক্ষার অধিকার রয়েছে| মোদীর সফরের আগে সোফার সাফ জানিয়েছেন, সন্ত্রাসবাদের প্রশ্নে ভারতকে সমর্থনের কথা কখনও গোপন রাখেনি ইজরায়েল|

দু’দেশের কৃটনৈতিক সম্পর্কে ২৫ বছর উপলক্ষ্যে মঙ্গলবার তিনদিনের সফরে ইজরায়েল রওনা দিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী| এই প্রথম ভারতের কোনও প্রধানমন্ত্রী ইজরায়েলে যাচ্ছেন| ইজরায়েলের প্রধানমন্ত্রী বেঞ্জামিন নেতানিয়াহু মোদীকে স্বাগত জানাতে নিজে উপস্থিত থাকবেন বলে জানা গিযেছে| এই ইজরায়েল সফরের আগে প্রধানমন্ত্রী এক সাক্ষাত্কারে বক্তব্যের শুরুতে ‘সালোম’ বলেন| ইজরায়েলি ভাষায় ‘সালোম’ শব্দের অর্থ নমস্কার| তিনি ওই সাক্ষাত্কারে জানান, প্রতিকূলতার মধ্যে ইজরায়েলের উন্নয়ন চোখে পড়ার মতো| আবিষ্কার, প্রযুক্তির বিষয়ে অনেক এগিয়ে রয়েছে ইজরায়েল| এই সব কিছু ভারতকেও এগিয়ে যেতে যথেষ্ট সাহায্য করবে বলে তিনি মনে করেন|

প্রসঙ্গত, মার্কিন সফরের পরে ইজরায়েল সফরেও যে সন্ত্রাসবাদই আলোচনার টেবিলে অন্যতম বিষয় হতে চলেছে বলে সূত্রের খবর| ইজরায়েলের একটি সংবাদপত্রকে সাক্ষাত্কার দেওয়ার সময় প্রধানমন্ত্রী মোদী বলেন, বিশ্বের অন্যতম বড় অভিশাপ হল সন্ত্রাসবাদ| তাই যারা তা সৃষ্টি করছে তাদের রেহাই দেবে না ইজরায়েল ও ভারত| নিরীহ মানুষকে যারা মারছে, তাদের কোনও মতেই মদত দেবে না দু’দেশ তাও জানিয়েছেন মোদী| জানা গিয়েছে, জার্মানির হামৱুর্গে জি-২০ সামিটে যাওয়ার আগে আগামী ৬ জুলাই পর‌্যন্ত ইজরায়েলে থাকবেন মোদী| এদিকে ইন্দো-ইজরায়েলি সংগীতশিল্পী লিওরা আইজ্যাক ইজরায়েলে মোদীর এই সফর উপলক্ষ্যে দু’দেশের জাতীয় সংগীতও গাইবেন|

About the Author