জাপানের প্রথম মহিলা যুদ্ধবিমান পাইলট

Share This
Tags

টোকিও: এবার জাপানের মিসা মাৎসুশিমা অনন্য নজির সৃষ্টি করতে চলেছেন। আজ, শুক্রবার জাপানের প্রথম মহিলা যুদ্ধবিমান চালক হিসেবে সরকারি অনুমোদন পেতে চলেছেন তিনি। জাপানের প্রতিরক্ষা মন্ত্রক সূত্রে জানা গিয়েছে, ফার্স্ট লেফটেন্যান্ট মিসা গত বুধবার জাপান এয়ার সেল্ফ ডিফেন্স ফোর্সের প্রশিক্ষণ শেষ করেছেন। পেয়েছেন এফ-১৫ যুদ্ধবিমান চালানোর ছাড়পত্রও। এখন শুধু সরকারিভাবে যুদ্ধবিমান চালক হিসেবে তাঁর নাম ঘোষণাটাই যা শুধু বাকি রয়েছে।
স্থানীয় সংবাদমাধ্যমকে দেওয়া সাক্ষাৎকারে বছর ছাব্বিশের মিসা বলেন, ‘প্রাইমারি স্কুলে পড়ার সময়ই টম ক্রুজ অভিনীত হলিউড ছবি টপ গান দেখেছিলাম। তখন থেকেই আমি যুদ্ধবিমানের চালক হওয়ার স্বপ্ন দেখতে শুরু করি।’ নিজের কর্তব্য নিষ্ঠার সঙ্গে পালন করার পাশাপাশি দেশের অন্য মেয়েরাও যাতে তাঁর পথ অনুসরণ করে ‘আকাশ ছুঁতে’ পারে, সেই চেষ্টাই তিনি নিরন্তর চালিয়ে যাবেন বলেই জানিয়েছেন মিসা।
১৯৯৩ সালে জাপানের বায়ুসেনা যুদ্ধ বিমান এবং নজরদারি বিমানের চালক ছাড়া বাকি সমস্ত পদে মহিলাদের নিয়োগের ছাড়পত্র দেয়। এরপর ২০১৫ সালে সেই নিষেধাজ্ঞাও তুলে নেওয়া হয়। যার ফলে মিসার মতো মেয়েদের সামনে স্বপ্নপূরণের দরজা খুলে যায়। জানা গিয়েছে, মিসার প্রশিক্ষণ সম্পন্ন হলেও, আরও তিন মহিলা এখনও প্রশিক্ষণ নিচ্ছেন।
উল্লেখ্য, জাপানের ২ লক্ষ ২৮ হাজার সেনার মধ্যে মহিলা রয়েছেন মাত্র ৬.৪ শতাংশ। প্রধানমন্ত্রী শিনজো আবে একাধিকবার সর্বোচ্চ পদগুলির দরজা মহিলাদের জন্য খুলে দিতে দেশের কর্পোরেট জগতের কাছে আর্জি জানালেও, তাতে তেমন একটা কাজ হয়নি।

About the Author