Published On: মঙ্গল, ডিসে. 31st, 2019

রাগ মোটেও ভাল নয়, রাগ কমানোর নানান উপায়

Share This
Tags

রাগ প্রতিটি মানুষের এক স্বাভাবিক অনুভূতি। তবে তার প্রকাশ একেক জনের কাছে একেক রকম ভাবে হয়। অনেক সময়েই তার প্রকাশ অস্বাভাবিকও হয়ে যায়। একেবারেই রাগ নেই, এমন মানুষ খুব কম পাওয়া যাই। আর অতিরিক্ত রাগ মোটেও ভাল নয়। এর ফলে নিজের কিংবা অন্যের জন্য ক্ষতিকর পরিস্থিতি সৃষ্টি হয়। তাই রাগ নিয়ন্ত্রণ করা অত্যন্ত জরুরি।

রাগ কমানোর কিছু উপায় হলঃ নিয়মিত এক্সারসাইজ করতে হবে। এতেও রাগের প্রবণতা কমে। কিছুক্ষনের জন্য রাগ কমাতে কিছুটা পথ হাঁটতে পারেন। মনকে যতটা সম্ভব শান্ত রাখার চেষ্টা করুন, এক থেকে দশ পর্যন্ত উল্টো করে গুনতে পারেন, তাহলে মস্তিষ্ককে কিছুটা অন্যদিকে ব্যস্ত রাখা যাবে। এটা রাগ কমাতে সাহায্যে করে। হঠাৎ করে রাগের মাথায় কোনও কথা বা কাজ করে বসবেন না, সময় নিন, প্রয়োজন হলে সেই মানুষটার সঙ্গে কিছুক্ষণ কথা বন্ধ রাখুন অথবা রাগের কারণটি থেকে নিজের মনকে অন্যদিকে সরিয়ে নিন। আপনি যখন শান্ত হয়ে যাবেন, আপনার রাগের কারণগুলো তার সামনে তুলে ধরুন, ততক্ষণে অপরজনের মাথাও ঠাণ্ডা হয়ে যাবে, সে ভালভাবে আপনার কথা বুঝতে পারবে। আপনি যখন রেগে আছেন স্বাভাবিকভাবেই আপনার মধ্যে নমনীয়তা কাজ করবে না, আর তাই হঠাৎ করে এমন কিছু কথা বলে ফেলতে পারেন যা অন্যের কষ্টের কারণ হতে পারে, তাই রেগে থাকার সময়ে কোনও কথা না বলাই শ্রেয়। যে কোনও সমস্যারই সমাধান আছে, একটু ঠাণ্ডা মাথায় চিন্তা করলেই সেটা বের করা যায়। সেটাই চেষ্টা করুন। নিজেকে নিয়ে বেশি হিসাব করতে গেলে রাগ আরও বাড়বে, তাই তাৎক্ষণিক ব্যাপারটা মেনে নিলে সমস্যা অনেকটা কমে যায়। রাগ কমাতে অনেকে ধূমপান করেন। অন্য নেশাও করেন। কিন্তু সেটা কোনও পথ নয়। তাতে মনটা আরও বিক্ষিপ্ত হয়ে উঠে। রাগ বা টেনশন কমানোর জন্য খানিকটা হাসি ঠাট্টা করা যেতে পারে, তাতে মনটা হালকা হয়ে যায়। সব থেকে ভাল উপায় হল নিয়মিত মেডিটেশন করা। এতে শরীরের অন্য উপকারের সঙ্গে সঙ্গে রাগ নিয়ন্ত্রণ হয়।

About the Author