Published On: শনি, মার্চ 14th, 2020

পারিবারিক অশান্তির জেরে তিন বছরের শিশুকন্যাকে খুন

Share This
Tags

মালদা: পারিবারিক অশান্তির জেরে  হরিশ্চন্দ্রপুর-১ নং ব্লকের কুশিদা জিপির কুশিদা গ্রামে তিন বছরের ‌শিশুকন্যার গলা টিপে আছড়ে মেরে ফেলার অভিযোগ উঠল সৎ মা রেজি বিবির বিরুদ্ধে। মৃত শিশুর নাম জুলি খাতুন (৩)।শিশুকন্যার মা দুলালী বিবি হরিশ্চন্দ্রপুর থানায় জা(সতীন) রেজি বিবি ও স্বামী আবুল আলি অরফে নুনুয়া-র বিরুদ্ধে লিখিত  অভিযোগ দায়ের করেছেন। হরিশ্চন্দ্রপুর থানার পুলিস অভিযুক্তদেরকে আটক করেছে। বুধবার ময়নাতদন্তের জন্য শিশুটির মৃত দেহটি মালদা মেডিকেল কলেজ এ্যান্ড হাসপাতালে পাঠানো হয় বলে জানা যায়।

স্থানীয় সূত্রে জানা গিয়েছে,আবুল আলির তিনটি বিয়ে। প্রথম স্ত্রী মারা যাবার পর দ্বিতীয় বিয়ে করে হরিশ্চন্দ্রপুর-১ নং ব্লকের তুলসিহাটা জিপির বাগমারা গ্রামে রেজি বিবিকে।দ্বিতীয় বিয়ের কয়েক বছর যেতে না যেতেই ‌আবার গোপনে তৃতীয় বিয়ে করে বিহারের বারসই থানার গাইঘাটা গ্রামে দুলালী বিবিকে।

আবার‌ জানা যায় দুলালী বিবিরও তিনটি বিয়ে। প্রথম বিয়ে চাঁচলের আশাপুরে।স্বামী মারা যাওয়ার পর দ্বিতীয় বিয়ে করে কুশিদা গ্রামের বাসিন্দা আবুল আলিকে। পরিবারে অশান্তির জেরে স্বামীকে ত্যাগ করে তিন মাস আগে আবাদপুর থানার বজবাড়ী গ্রামে বিয়ে করে সংসার করছিল বলে জানা যায়।

দ্বিতীয় স্ত্রী রেজি বিবির দুই ছেলে ও দুই মেয়ে। অপরদিকে তৃতীয় স্ত্রী দুলালী বিবির ছিল বছর তিনেকের একমাত্র কন্যা জুলি খাতুন।সে বাবা ও সৎমার কাছেই থাকত।

 দুই স্ত্রীকে নিয়ে আবুলের পরিবারে অশান্তি লেগে থাকত বলে জানা যায়। যার জেরে দুলালী বিবি স্বামী থেকে বিচ্ছেদ ঘটিয়ে আলাদা সংসার করছিল।এ নিয়ে গ্রাম ও থানায় বেশ কয়েকবার বিচার-সালিশও হয়। তা সত্ত্বেও পরিবারে ঝগড়া লেগেই থাকত। বাধ্য হয়ে দুলালী বিবি তিন বছরের শিশু কন্যাকে বাবার কাছে রেখে আলাদা বিয়ে করে সংসার শুরু করে।

এদিন দুলালী বিবি কুশিদা হাটে গরু বিক্রি করতে এসে শুনতে পায় যে তার মেয়েকে গলা টিপে শ্বাসরুদ্ধ করে খুন করেছে তার জা(সতীন) রেজি বিবি। প্রথমদিকে বিশ্বাস করতে না পারলেও এসে দেখে রক্তাক্ত অবস্থায় তার মেয়ে বারান্দায় মরে পরে রয়েছে।

প্রতিবেশী মঞ্জুরি বিবি জানান,দুলালী বিবি আবুলের তৃতীয় পক্ষের স্ত্রী। আট বছর আগে তার সঙ্গে বিয়ে হয়। তৃতীয় স্ত্রীকে ঘরে তোলামাত্র পরিবারে একটা অশান্তি শুরু হয়।এমনকী কন্যাসন্তান হওয়ার পর অশান্তি আরও বেড়ে যায়।

এরপর এদিন বেলা সাড়ে ১০ টা নাগাদ স্বামীর অনুপস্থিতিতে রেজি বিবি তার সৎ তিন বছরের শিশু কন্যা জুলি খাতুনকে আছাড় মেরে পা দিয়ে গলা টিপে শ্বাসরুদ্ধ করে খুন করে বলে অভিযোগ।

পরে ঘটনাস্থলে চিৎকার শুনতে পেয়ে গ্রামবাসীরা ছুটে এসে রেজি বিবিকে ধরে ফেলে। খবর পেয়ে হরিশ্চন্দ্রপুর থানার পুলিশ ঘটনাস্থলে ছুটে আসে এবং অভিযুক্তকারীদের ধরে থানায় নিয়ে যায়।

দুলালি বিবি জানান, প্রায় তিন মাস আগে স্বামী থেক বিচ্ছেদ ঘটিয়ে একমাত্র শিশুকন্যাকে বাবা ও সৎমার কাছে রেখে আলাদা সংসার করছিল বলে জানান। এদিন কুশিদা হাটে গরু বিক্রি করতে এসে শুনতে পায় তার মেয়েকে শ্বাসরুদ্ধ করে খুন করেছে তার সৎ মা।

থানায় খবর দেওয়া হয়। সেখানে পুলিস পৌঁছে অভিযুক্ত কারীদের আটক করে এবং মৃতদেহটি বুধবার সকালে ময়নাতদন্তের জন্য পাঠায়।পরে স্বামী ও জা(সতীন)এর বিরুদ্ধে মেয়েকে শ্বাসরোধ করে আছড়ে ফেলার অভিযোগ করেন বলে জানান।

সে আরো জানান তাকে তৃতীয় স্ত্রী মেনে নেওয়ার পরেও তার ও মেয়ের উপর নির্যাতন চালাত আবুল।

এদিকে ঘটনার জেরে ওই গ্রামে ব্যাপক চাঞ্চল্য ছড়ায়।

 স্থানীয় কুশিদা পঞ্চায়েতের সদস্য আজম আলি

 বলেন, এটি একটি মর্মান্তিক ঘটনা। তিনবছরের সন্তানকে মেরে ফেলেছে। অভিযুক্তদের যেন কঠোর শাস্তি হয়।

হরিশ্চন্দ্রপুর থানার পুলিস জানিয়েছে, তিন বছরের কন্যা সন্তানকে গলা টিপে আছড়ে মেরে ফেলার ঘটনায় সৎ মা ও  বাবার বিরুদ্ধে অভিযোগ হয়েছে। অভিযুক্তদের আটক করে জিজ্ঞাসাবাদ চলছে। পুরো ঘটনাটি তদন্ত করে দেখা হচ্ছে।

About the Author