হাওড়ার মঙ্গলাহাট সেপ্টেম্বরের তৃতীয় সপ্তাহ নাগাদ খুলতে পারে

Share This
Tags

সুমন আদক, হাওড়াঃ চলতি ইংরেজি মাসের তৃতীয় সপ্তাহ নাগাদ খুলতে পারে এশিয়ার অন্যতম বৃহৎ হাওড়ার মঙ্গলাহাট। বুধবার এক বৈঠকে এমনই সিদ্ধান্ত নিয়েছে হাওড়া জেলা প্রশাসন। বুধবার হাওড়ার কোভিড পরিস্থিতি নিয়ে একটি ভারচুয়াল বৈঠকে বসেন জেলা টাস্ক ফোর্সের সদস্যরা। সেই বৈঠকেই ওই সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়। হাট খোলা হলেও ফুটপাতে বসা খুচরো ব্যবসায়ীদের কাছাকাছি অন্য কোনও জায়গায় বসার ব্যবস্থা করা হবে। কিভাবে সামাজিক দূরত্ব বিধি মেনে হাট চালানো যাবে তা নিয়ে হাট ব্যবসায়ীদের  সঙ্গে শীঘ্রই বৈঠক হবে বলে জেলা প্রশাসন সূত্রে এদিন জানানো হয়েছে। করোনা পরিস্থিতির জেরে গত ২৪ মার্চ থেকে শুরু হয় দেশব্যাপী লকডাউন।সেই সময় থেকেই বন্ধ হয়ে যায় হাওড়ার মঙ্গলাহাটও।হাট বন্ধ থাকায় সমস্যায় পড়েন প্রায় হাজার হাজার ব্যবসায়ী। এরপর আনলক পর্ব শুরু হয় ১জুন। সেই সময় থেকেই বারেবারে হাট চালু করার জন্যে  ব্যবসায়ীরা জেলা প্রশাসনের কাছে চিঠি দিয়ে আর্জি জানিয়ে আসছিলেন। কিন্তু  সরকারি অনুমতি না মেলায় চালু করা যায়নি এই হাট। মঙ্গলাহাট চালু করা নিয়েই কোভিডের জন্য গঠিত জেলা টাস্ক ফোর্সের ভার্চুয়াল বৈঠক হয়। ওই বৈঠকে অংশ নেন জেলাশাসক মুক্তা আর্য্য, পুলিশ কমিশনার কুনাল আগরওয়াল, জেলা পরিষদের সহ সভাধিপতি অজয় ভট্টার্চায্য, জেলার মুখ্য স্বাস্থ্য অধির্কতা ভবানী দাস সহ  প্রশাসনের পদস্থ কর্তারা। জানা গেছে, হাওড়া জেলা হাসপাতাল সহ বিভিন্ন সরকারি দফতর থাকায় যে এলাকায় আগে হাট বসতো সেখানে এই কোভিড পরিস্থিতে হাট বসাতে দেওয়া যাবেনা। এছাড়াও লোকাল ট্রেন চালু হয়ে গেলে হাটে যে লক্ষ লক্ষ মানুষের সমাবেশ হবে তাতে করোনা ভয়াবহ আকার নিতে পারে। তাই সবকিছু দেখেই সিদ্ধান্ত নেওয়া হবে।
জেলা পরিষদের সহ সভাধিপতি অজয় ভট্টাচার্য বলেন, আগামী তিন সপ্তাহের মধ্যে হাট চালু করার সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে। খুচরো বিক্রেতাদের অন্যত্র বসার ব্যবস্থা হচ্ছে। যাঁরা বিভিন্ন বাড়ির ভিতর দোকানে বসেন তাঁদের দোকান কীভাবে খোলা হবে তা আলোচনা করে ঠিক হবে।

About the Author