খবরা খবর খেলা-ধুলা দেশের খবর বিশ্বের খবর

দর্শকহীন আইপিএলে গ্যালারিতে ধোনিদের নামে উঠবে জয়ধ্বনি

করোনার এই অকাল মহামারীতে ফাঁকা মাঠে খেলাধুলো নতুন কোনও বিষয় নয়। তবে ফাঁকা মাঠে খেলা হলেও কৃত্রিম শব্দব্রহ্ম সৃষ্টি করে প্লেয়ারদের একটা দর্শক আবহের চেষ্টা করা হয়েছে সর্বত্র। সেই জার্মান বুন্দেশলিগা থেকে শুরু হয়ে লা লিগা, চ্যাম্পিয়ন্স লিগ, ইংল্যান্ড-অস্ট্রেলিয়া সিরিজ ঘুরে আইপিএলেও একই ট্রেন্ড বজায় থাকতে চলেছে। এবার সংযুক্ত আরব আমিরশাহীতে হতে চলা আইপিএলেও খুব সম্ভবত তা ঘটতে চলেছে। শুধু একটু অন্যভাবে। ভাবা হচ্ছে ক্রিকেটার এবং টিমের নাম ধরে ধরে ‘চান্ট’ বা জয়ধ্বনির শব্দ গ্যালারিজুড়ে ভাসিয়ে তোলার কথা। মানে ধরা যাক, সিএসকে’র জার্সি গায়ে মহেন্দ্র সিং ধোনি ব্যাট করতে নামছেন আর ঠিক তখনই আবু ধাবি বা দুবাই স্টেডিয়ামের গ্যালারিতে কৃত্রিম শব্দব্রহ্ম গর্জে উঠবে, ‘ধোনি, ধোনি।’ বিরাটের ক্ষেত্রে ‘কোহলি.কোহলি’। কিংবা কিং খানের কলকাতা নাইট রাইডার্স নামলে ‘কেকেআর.কেকেআর।’ অর্থাত্‍ ক্রিকেটারদের বোঝানো যে, করোনা যতই সবকিছু কেড়েকুড়ে নিক, মাঠে দর্শকদের আসা বন্ধ করুক, তাঁরা একেবারে নিঃসঙ্গ নন! আর এতেই আরও জমে উঠবে টুর্নামেন্ট। আশাবাদী আয়োজকরা। দুবাইয়ে খোঁজ করে জানা গেল, প্রথমে বড় আকারে ভারতের আইপিএল দর্শকদের সঙ্গে যোগাযোগের কথা ভেবে রাখা হয়েছিল। ভাবা হয়েছিল, আমিরশাহীতে ম্যাচ চলাকালীন ক্রিকেটারদের সঙ্গে ভারতীয় আইপিএল দর্শকের ভারচুয়াল সংযোগ যদি ঘটানো সম্ভব হয়। অর্থাত্‍, দেশে উপস্থিত সমর্থকরা রিয়েল টাইমে কানেক্ট করলেন আমিরশাহীতে খেলা চলাকালীন ক্রিকেটারদের সঙ্গে। প্রিয় ক্রিকেটারের উদ্দেশে হাত-টাত নাড়লেন, তাঁরাও নাড়লেন পালটা। এবং দু’পক্ষই একই সময়ে সেটা দেখতে পেল। কিন্তু যথেষ্ট ব্যবস্থাপনার অভাবে তেমনটা নাকি হচ্ছে না। গ্যালারিতে দর্শকদের কাট আউট বসানোর ভাবনাও নাকি বিসর্জন দিতে হচ্ছে। কারণ মোট আটটা টিম খেলবে টুর্নামেন্টে। সেক্ষেত্রে প্রতিদিন কাট আউট পালটাতে হবে। যা বেশ ঝক্কির কাজ।

মন্তব্য করুন