করোনার মধ‍্যেই আরো এক অজানা অসুখে মৃত্যু ১ জনের।

Share This
Tags

করোনা আতঙ্কের মধ্যেই অন্ধ্রপ্রদেশের ইল্লুরে এক অজানা অসুখ দেখা দিয়েছে। এই রোগ খুব দ্রুতহারে ছড়াছে। এখনো পর্যন্ত পাওয়া খবরে অসুস্থ হয়ে কমপক্ষে ৩০০ জন ভর্তি হলেন হাসপাতালে। প্রত্যেকেরেই রয়েছে বমি, কাঁপুনি, মাথা ঘোরার মতো উপসর্গ। কয়েকজন তো অজ্ঞানও হয়ে গিয়েছিলেন। শেষ খবর পাওয়া পর্যন্ত শ্রীধর নামে বছর পঁয়চাল্লিশের এক ব্যক্তি প্রাণ হারিয়েছেন। তবে স্বস্তির কথা এই যে প্রায় ১৫০-র বেশি লোক ইতিমধ্যে বাড়ি ফিরে গিয়েছেন। বাকিদের অবস্থাও স্থিতীশীল বলেই জানিয়েছেন পশ্চিম গোদাবরী জেলার স্বাস্থ্য আধিকারিকরা। হাসপাতালে ভর্তি সকলের রক্ত সহ একাধিক পরীক্ষা করা হয়েছে। হয়েছে সিটি স্ক্যানও। কোনও ভাইরাস বা ব্যাক্টেরিয়ার সংক্রমণ থেকে এভাবে গণ অসুস্থতা ছড়ায়নি বলে জানান ডাক্তাররা। এই এলাকার বাতাসে ক্লোরিনের আধিক্য পাওয়া গিয়েছে। তাই জলের মাধ্যমে বা বাতাসের দূষণের বাড়তি মাত্রা, কোনওভাবে সকলে আক্রান্ত হয়ে থাকতে পারেন বলেই আশঙ্কা।

গতকাল রাতেই অজানা কারণে অসুস্থতার এমন বহরে ব্যাপক চাঞ্চল্য ছড়ায় পুরো এলাকায়। আজ সকালেই ঘটনাস্থলে ছুটে গিয়ে হাসপাতালে ভর্তি ব্যক্তিদের সঙ্গে দেখা করে কথা বলেন অন্ধ্রের মুখ্যমন্ত্রী ওয়াই এস জগন্মোহন রেড্ডি।

মৃত ব্যক্তির অটোপসি ও আক্রান্তদের রক্ত সহ বিভিন্ন পরীক্ষার স্যাম্পেল পাওয়া গেলে তবেই গোটা বিষয়টা নিয়ে ধোঁয়াশা পরিষ্কার হবে বলে জানান অন্ধ্রের মুখ্যমন্ত্রী। গোটা বিষয়টা নিয়ে তদন্তের ইঙ্গিতও দিয়েছেন তিনি। পরিস্থিতি নিয়ে খোঁজখবর নিয়েছেন কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহ।

তবে মহিলা, শিশু, পুরুষ নির্বিশেষে যেভাবে সকলে একইসঙ্গে অসুস্থ হয়ে পড়েছিলো। সেটাই এলাকাবাসীর চিন্তার কারণ।

About the Author