ত্বকের সৌন্দর্যে দুধের উপকারিতা।

Widgetized Section

Go to Admin » Appearance » Widgets » and move Gabfire Widget: Share into that BigPicture-Share zone

সুন্দর, দাগমুক্ত মুখশ্রী আত্মবিশ্বাস বাড়ালেও বয়স বেড়ে যাওয়ার সঙ্গে সঙ্গে বাড়তে থাকে ত্বকের দাগ-ছোপও। তবে এই দাগের কারণে মন খারাপ করবেন না যেন। বরং একটু যত্নশীল হলেই দাগ থেকে মুক্তি পাওয়া সম্ভব। আপনার ত্বকের সঙ্গে মানানসই, এমন সব রূপচর্চা করতে পারেন। বাইরে থেকে কিনে আনা কেমিক্যালযুক্ত প্রসাধনী ব্যবহারের ক্ষেত্রেও সতর্ক হোন। কারণ বেশিরভাগ ক্ষেত্রেই তা উপকারের বদলে ক্ষতি করে বেশি। আবার অনেক সময় সাময়িক মুক্তি মিললেও পরবর্তীতে দেখা দেয় গভীর সমস্যা। তাই ত্বকের দাগ-ছোপ দূর করার ক্ষেত্রে সতর্ক হোন। আস্থা রাখুন ঘরোয়া উপাদানে। এরপরও সমস্যার সমাধান না হলে একজন চর্ম বিশেষজ্ঞের সঙ্গে যোগাযোগ করুন।

ত্বকের দাগ-ছোপ এড়াতে ভেতর থেকে আর্দ্র রাখতে হবে। অনেকে ব্রণ থাকার কারণে ময়েশ্চারাইজার ব্যবহার করেন না। তবে তৈলাক্ত ত্বক স্ক্রাব করা হলে তার ক্ষয় পূরণ করার জন্য ময়েশ্চারাইজার ব্যবহার করা উচিত। ত্বকে তৈলাক্তভাব কমাতে চাইলে, তেল দূর করার জন্য বার বার স্ক্রাব না করে ময়েশ্চারাইজার ব্যবহার করা উচিত। 

ব্রণ হওয়ার জন্য বেশিরভাগ ক্ষেত্রে দায়ী হলো দূষণ, ধুলোবালি। এগুলো লোমকূপ বন্ধ করে দেয়। ফলে দেখা দেয় ব্রণ। আর ব্রণের কারণে ত্বকে সৃষ্টি হয় দাগ। অনেক সময় লোমকূপ বন্ধ করার জন্য সানস্ক্রিনও দায়ী থাকে। তাই সানস্ক্রিন নির্বাচনের সময় তেল মুক্ত বা ত্বকের লোম কুপে আবদ্ধ হবে না এমন সান স্ক্রিন দেখে কিনুন। পাশাপাশি মুখে মেকআপ করলে তা পুরোপুরি তুলে তবেই ঘুমাতে যান।

ত্বকের দাগ দূর করার জন্য ব্যবহার করুন গুঁড়া দুধের স্ক্রাব। এটি ঘরে বসেই খুব সহজে তৈরি করতে পারবেন। পাঁচ-ছয়টি কাঠ বাদাম গুঁড়া করে নিন। এরপর তিন চা চামচ লেবুর রস ও দুই চা চামচ গুঁড়া দুধ ভালোভাবে মিশিয়ে নিন। এবার এর সঙ্গে গুঁড়া করে রাখা কাঠ বাদামও মেশান। এই তিন উপাদানই ত্বকের দাগ দূর করার জন্য কার্যকরী।  মিশ্রণ তৈরি হয়ে গেলে ত্বকের যেসব স্থানে দাগ আছে সেসব স্থানে ভালোভাবে মেখে নিন। এভাবে রেখে দিন আধাঘণ্টা। এরপর ভালোভাবে মুখ ধুয়ে নিন। এভাবে এক সপ্তাহ নিয়মিত ব্যবহার করলে দাগ অনেকটাই কমে আসতে শুরু করবে। পুরো পুরো দাগমুক্ত ত্বক পেতে নিয়মিত ব্যবহার করুন গুঁড়া দুধের স্ক্রাব।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *