আনন্দ উপভোগ কলকাতা খেলা-ধুলা ডিসপ্লে দেশের খবর ফিয়েচার বিশ্বের খবর

১১ বছর পর ফের ১১ জুন মুখোমুখি ইটালি এবং তুরস্ক

অপেক্ষার শেষ দিন। আজ রাতেই পর্দা উঠছে ইউরোর। ইতালি এবং তুরস্কের ম্যাচ দিয়ে বোধন ঘটছে ‘মিনি বিশ্বকাপ’ খ্যাত ইউরোপ সেরার লড়াইয়ের। আজ ভারতীয় সময় রাত সাড়ে ১২টায় শুরু হচ্ছে বহু প্রতীক্ষীত ইউরো কাপ। প্রথম ম্যাচে মাঠে নামছে ইটালি। তাদের মুখোমুখি তুরস্ক। করোনা অতিমারীর কারণে উদ্বোধনী অনুষ্ঠান হবে অনাড়ম্বর ভাবেই। রোমের স্তাদিও অলিম্পিকোতে ১৬,০০০ দর্শক মাঠে বসে উপভোগ করতে পারবে ইতালি বনাম তুরস্কের লড়াই। ১১ বছর আগে ঠিক এই ১১ জুনে এই দুই দল ইউরো কাপে মুখোমুখি হয়েছিল। সে ম্যাচে আন্তনিও কন্তে এবং ফিলিপো ইনজাঘির গোলে ২-১ ফলে জেতে আজুরিরা। ইউরো কাপের ইতিহাসে তুরস্কের হয়ে প্রথম গোলটি করেন ওকান বুরুক।
গত বিশ্বকাপে খেলার যোগ্যতা অর্জন করতে পারেনি চারবার বিশ্বকাপ জয়ী ইটালি। সেই লজ্জা এবং দুঃসময় কাটিয়ে রেনেসাঁ ঘটিয়েছেন কোচ রবার্তো ম্যানচিনি। অভিজ্ঞতা এবং তারুণ্যের মিশেলে দল গড়েছেন তিনি। অশ্বমেধের ঘোড়ার মতো ছুটছে রবার্টো মানচিনির ইতালি। ২০১৮ সাল থেকে টানা ২৭ ম্যাচে অপরাজেয় আজুরিরা। তবে আজকের লড়াই হাইভোল্টেজ। কারণ ফিফা র‌্যাংকিংএ ২৯ নম্বর দেশ তুরস্কও রয়েছে ছন্দে। সেনোল জিউনেসের দলে প্রতিভার অভাব নেই। ইতালির বিপক্ষে কখনো না জিতলেও প্রথম ম্যাচে স্নায়ুর উত্তেজনা থাকবে দুই দলের মধ্যে। অন্যদিকে তুরস্কের দলেও ইউরোপে খেলা ফুটবলাররা রয়েছেন। সোয়োঞ্চু, ইলমাজরা রীতিমতো প্রথম একাদশের খেলোয়াড়। ইউরো কাপে তাদের সাফল্য বলতে ২০০৮ সালে সেমিফাইনাল পর্যন্ত চলে যাওয়া। তবে এ বছর তাদের গ্রুপের অন্য দুই দল সুইত্‍জারল্যান্ড এবং ওয়েলস। ফলে গ্রুপ স্টেজের বাধা টপকানো কঠিন হবে। আজ কোনওভাবে ড্র রাখতে পারলে সেটা সাফল্যই।

মন্তব্য করুন