খবরা খবর দরকারি খোঁজ খবর দেশের খবর শিল্প এবং জীবন যাত্রা

ছন্দে ফিরছে রাজধানী লকডাউন বিধিনিষেধে শিথিল

করোনা পরিস্থিতি স্বাভাবিক হতেই ছন্দে ফিরছে রাজধানী দিল্লি। তাই সোমবার থেকে একাধিক ছাড়ের ঘোষণা করলেন দিল্লির মুখ্যমন্ত্রী অরবিন্দ কেজরিওয়াল। দৈনিক সংক্রমণ কমতেই দিল্লিতে এবার শুরু হবে আনলক প্রক্রিয়া। রবিবার কেজরিওয়াল জানানলেন,সোমবার থেকে দিল্লিতে বাজার,শপিং মল সমস্তকিছু খোলা থাকবে। গত ২৪ ঘণ্টায় দিল্লিতে করোনা আক্রান্ত হয়েছেন ২১৩ জন। ছাড় থাকবে রেস্তরাঁর। স্বাস্থ্যদফতরের বুলেটিন অনুযায়ী, দৈনিক আক্রান্তের সংখ্যা আগের তুলনায় অনেকটাই নিয়ন্ত্রণ করা সম্ভব হয়েছে। এর আগে জোড়-বিজোড় পদ্ধতিতেতে দোকান ও বাজার খোলার সিদ্ধান্ত নিয়েছিল কেজরিওয়াল সরকার। এবার পুরপুরি আনলকের সিদ্ধান্ত নিতে চলেছে সরকার। দিল্লির মুখ্যমন্ত্রী অরবিন্দ কেজরিওয়াল জানিয়েছেন, আগামী ১ সপ্তাহ চলবে আনলকের ট্রায়াল। অর্থ্যাত সমস্ত দোকান ও রেস্তোরাঁ খোলা থাকবে। সোওবার থেকেই এই নিয়ম কার্যকর করা হবে বলে জানিয়েছেন তিনি।
কেজরিওয়াল আরও জানিয়েছেন, সকাল ১০টা থেকে সন্ধ্যা ৮টা পর্যন্ত সব দোকান খোলা থাকবে। ৫০ শতাংশ আসন নিয়ে খোলা যাবে রেস্তোরাঁ। ৫০ শতাংশ ব্যবসায়ীদের নিয়ে খোলা হবে সাপ্তাহিক বাজার। তবে প্রতি পুরসভায় প্রতিদিন একটাই বাজার খুলতে পারবে। ধর্মীয় স্থানও খোলা হবে বলে জানিয়েছেন তিনি। তবে সেখানে কোনও ভক্ত প্রবেশ করতে পারবেন না।
এছাড়াও কোন কোন পরিষেবা চালু থাকবে তা দেখে নেওয়া যাক-
• অত্যাবশ্যকীয় পণ্য ও ওষুধের দোকানগুলি সারাদিনই খোলা রাখা যাবে
• শপিং মল খোলা হবে
• ৫০ শতাংশ আসন নিয়ে চালু করা হচ্ছে মেট্রো পরিষেবা।
• অনলাইনে পণ্য ডেলিভারিও চালু করার সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে।
• অনুষ্ঠান বাড়িগুলিতে সর্বোচ্চ ২০ জন আমন্ত্রিত থাকতে পারবেন।
• ৫০ শতাংশ আসন নিয়ে চালু করা হচ্ছে গণপরিবহণ।
• রাজনৈতিক ও ধর্মীয় জমায়েতে নিষেধাজ্ঞা এখনও জারি থাকবে।
• সুইমিং পুল, পার্ক ও জিম পুরোপুরি বন্ধ থাকবে।
• আপাতত বন্ধ থাকবে শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানগুলিও। যদিও অনলাইন ক্লাস চলবে।

যদিও দিল্লিতে সংক্রমণ বেড়ে যাওয়াতে ১৯ এপ্রিল থেকে লকডাউন ঘোষণা করেছিলেন, কেজরিওয়াল সরকার। এরপর তা আরও বেড়ে যাওয়াতে মেয়াদ ফের বাড়ানো হয়। কিন্তু সংক্রমণ কিছুটা কমায় লকডাউন শিথিল করা হল। এছাড়া একধিক জিনিসের ওপর মিলল ছাড়। তবে আনলক শুরু হলেও করোনাবিধি মেনেই চলতে হবে প্রত্যেককেই,জানালেন কেজরিওয়াল সরকার।

মন্তব্য করুন